আ’ত্মহ’ত্যা ছাড়া আর উপায় থাকবে না, ভাইরাল ভিডিও প্রস’ঙ্গে নাসরিন

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভিনেত্রী নাসরিনকে ঘিরে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে ‘জীবনের গল্প কথা’ নামের এক ফেসবুক পেজে এক নারী নিজেকে যৌনকর্মী বলে দাবি করছেন। শুধু তাই নয়, ওই নারী ভিডিওতে দাবি করেন, বাংলা চলচ্চিত্রের পরিচিত মুখ, অভিনেত্রী নাসরিন তাঁকে এই পথে নিয়ে এসেছেন।

ওই ভিডিওটি ভাইরাল হতেই ব্যাপক সমালোচনা, আক্রমনের শিকার হচ্ছেন নাসরিন। ভিডিওটি দেখে অনেকটাই মুষড়ে পড়েছেন তিনি। শুধূ তাই নয়, তাকে নিয়ে আঙুল তোলা সেই ভিডিওর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে আত্মহত্যারও হুমকি দিয়েছেন তিনি। নাসরিন বলেন, অনেক কষ্ট আর সংগ্রাম করে আমি আজ এই অবস্থান তৈরি করেছি।

৭৩ বছর বয়সে মাস্টার্সে ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট

চলচ্চিত্র জগতের যারাই আমাকে চেনেন তারা সবাই জানেন আমি কেমন মানুষ। আমার চরিত্রের বদনাম কেই দিতে পারবে না। কারো উপকার ছাড়া কখনই কারো ক্ষতি করার চেষ্টা করিনি। আমাকে তারা জানেন না বলেই আমাকে নিয়ে এমন নোংরামি করছেন। তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মিথ্যা বানোয়াট তথ্য ছড়িয়ে আমাকে সামাজিক, মানসিক, পারিবারিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করা হচ্ছে।

বাবা কালেক্টরি অফিসে সাইন করানোর জন্য যেত..আজ সেই অফিসে মেয়ে কালেক্টর, গর্বে চোখে জল বাবার

দেশে আইন আছে, আমি আইনের দ্বারস্থ হয়েছি। নিশ্চয় তারা এর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন। না হলে আমার আত্মহত্যা করা ছাড়া আর উপায় থাকবে না। বলেই কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন অভিনেত্রী। নাসরিনের দাবি, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন বা ব্যক্তিগত কোন আক্রোশ থেকে আমাকে নিয়ে কে বা কাহারা নিম্নমানের পত্রিকা, ইউটিউব চ্যানেল এবং ফেসবুকের মাধ্যমে মিথ্যা, নোংরা, কুরুচিপূর্ণ তথ্য প্রচার করে মানসিক এবং সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করছে। এ ব্যাপারে মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »