সুস্থ থাকতে নগ্ন হয়েই ঘুমোন যা আপনাকে সুস্থ রাখবে Sleep naked to stay healthy

সারাদিন শিক্ষাক্ষেত্রে অথবা কর্মক্ষেত্রে টিপটপ পোশাকে থাকতে হয় আপনাকে। দিনের শেষে পোশাক পালটে একটু রিল্যাক্স করার চেয়ে বেশি সুখকর যেন আর কিছুই হয় না। কিন্তু বাড়ি গিয়ে যে পোশাক বদলান, রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে কি সেই পোশাক খুলে রাখেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে বেশিরভাগই বললেন, না। কারণ এ দেশে গুটিকয়েক মানুষ নগ্ন হয়ে ঘুমোন। শুধু এ দেশ কেন, মার্কিন মুলুকের ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশন জানাচ্ছে, মাত্র ১২ শতাংশ আমেরিকান রাতে অন্তর্বাস খুলে ঘুমোন। মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে নগ্ন হয়ে ঘুমের কী প্রয়োজন? বিজ্ঞান বলছে, এতে শরীর এবং মন দুই-ই ভাল থাকে। চলুন জেনে নেওয়া যাক, নিচের অন্তর্বাস খুলে ঘুমানোর কী কী উপকারিতা রয়েছে।

Benefits of Sleeping Naked
Benefits of Sleeping Naked

পোশাক-পরিধানে অঙ্গপ্রত্যঙ্গ মুড়ে নিদ্রা(Sleep), এ আর নতুন কথা কী! সবাই পোশাক(Dress) পরেই শুতে যায়। তার জন্য বাহারি নাইট সুটও থাকে সেট দুই। অনেকে তো অন্তর্বাসটিকেও ত্যাগ করে না ঘুমের সময়। ফুল স্পিডে পাখা চালিয়ে, পুরোদমে AC অন করে নিদ্রা(Sleep) যায়। কম্বোলের তলায় ঘা ঘেঁষাঘেঁষি করে এক রাতের অঘোর ঘুম উড়ে আসে দু-চোখের পাতায়। এটাই চেনা দস্তুর।

পাখা চললে জানালা খোলা। পাশের বাড়ির কেউ যাতে তাক করতে না পারে বেডরুমের অন্দর, যাতে দেখে না ফেলে ঘুমন্ত রূপ, তাই পুরোপুরি আবৃত হয়েই ঘুমের দেশে যাতায়াত। ACতে সেসব বালাই নেই, সব বন্ধ। কিন্তু ঠান্ডা লাগার আশঙ্কায় পোশাক(Dress) ত্যাগ করা যায় না।সুস্থ থাকতে

সুস্থ থাকতে নগ্ন হয়েই ঘুমোনঃ কিন্তু চুপিচুপি বলি, পোশাক পরিহিত ঘুমের চেয়ে, নগ্ন ঘুম অনেক ভালো। অনেক স্বাস্থ্যকর। এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের। ঘুমের সময় গায়ে একফোঁটা কাপড় না রাখার পরামর্শ দিচ্ছেন তাঁরা। সেই নগ্ন(Naked) ঘুমের কী কী প্লাস পয়েট জেনে নিন চট করে।

Benefits of Sleeping Naked
Benefits of Sleeping Naked

গোপনাঙ্গে সংক্রমণ নয়, তাই রাতেও পোশাক নয়
গোপনাঙ্গে জীবাণুরা সবচেয়ে বেশি আক্রমণ(Attack) করে। দিনরাত ঢেকে রাখার কারণেই এমনটা হয়। অংশগুলিতে উষ্ণতার মাত্রা বেড়ে যায়। জীবাণুরাও বেড়ে ওঠে পুরো মাত্রায়। তাই রাতে ঘুমের সময় খোলা রাখা চাই গোপনাঙ্গ। টানা ৭-৮ ঘণ্টা বাতাস খেললে, জীবাণুরাও প্রশ্রয় পাবে না আর।

নগ্ন ঘুম, আরও ভালো ঘুম

পোশাক না পরে ঘুমোলে অনেক খোলামেলা অনুভূতি হয়। ঘুমটা জমিয়ে উপভোগ করা যায়। সকালে উঠেই ফ্রেশ(Fresh)।

শরীরটাকে অনেক বেশি আকর্ষণীয় করে তোলে নগ্ন ঘুম
শরীরে অনেককিছু চাপিয়ে শুলে ত্বকের মেলাটোনিন ও গ্রোথ হরমোনগুলি ঠিকমতো নিঃসৃত হয় না। অনেক তাড়াতাড়ি বুড়িয়ে যায় ত্বক(Skin)। সময়ের অনেক আগেই বলিরেখা ফুটে ওঠে। ফলে যৌবন ধরে রাখতে রাতে পোশাক ত্যাগ করুন। শরীরের তাপমাত্রা কমে গেলে মেলাটোনিনের মতো হরমোনগুলি দারুণ কার্যকরী হয়ে উঠবে। আপনি হয়ে উঠবেন সুন্দরী, মোহময়ী অনন্যা।

ভুঁড়ি কমে যায় নগ্ন ঘুমে

নগ্নতা অনেক বেশি শান্তির ঘুম এনে দেয়। কর্টিসলের মতো স্ট্রেস(Stress) হরমোনগুলি কম পরিমাণে নিঃসরিত হয়। শরীরে এনার্জির মাত্রা বাড়তে থাকে। ক্ষণে ক্ষণে খিদে পায় না। ফ্যাটও জমে না শরীরের কার্ভি অংশে। বিশেষ করে পেটে ও কোমরে। বরং পেট ও কোমরের বাড়তি মেদ(Fat) ঝরিয়ে দীপিকা পাড়ুকোন হতে সাহায্য করে নগ্ন ঘুম।

আত্মবিশ্বাস বাড়ায় নেকেড স্লিপ

রাতভর ঠান্ডা ফুরফুরে ঘুমের পর মন মেজাজে শীতলতা চলে আসে। মাথা ঠান্ডা থাকেচিন্তাশক্তি(Thinking power) বাড়ে। আত্মবিশ্বাসে ভরে ওঠে মনপ্রাণ।

নগ্ন ঘুম ও যৌনসুখ

কাপলদের ক্ষেত্রে নগ্ন ঘুম ম্যাজিকের মতো কাজ করে। অক্সিটোসিন(Oxytocin) হরমোনের নিঃসরণ হয় বেশি। যৌনতাকে অন্য মাত্রায় পৌঁছে দেয় এই হরমোন। আগের চেয়ে অনেকবেশি যৌনসুখ(Sexual pleasure) উপভোগ করা যায়। অতৃপ্তি আসতেই পারে না।

সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে ও আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান। আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন। পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

সুস্থ থাকতে নগ্ন হয়েই ঘুমোন,এই পাঁচটি কারণেই নগ্ন হয়ে ঘুমানো উচিত,সুস্থ থাকতে নগ্ন হয়েই ঘুমোন,উলঙ্গ হয়ে মজা করার 4 উপায় নগ্ন হয়ে শোওয়ার ৭ টি উপকারিতা, যা আপনাকে সুস্থ রাখবে, sleeping skin-to-skin, with partner benefits of sleeping with clothes, on benefits of sleeping without pants benefits of sleeping, next to someone does sleeping naked, help lose weight is it better to sleep, with socks on or off is sleeping in unhealthy is it good to sleep, commando,Sleep naked to stay healthy,11 Benefits of Sleeping Naked,10 Benefits of Sleeping Naked You Probably Didn’t Know

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »