আন্তর্জাতিক মঞ্চে বাংলাদেশের প্রথম নারী বডি বিল্ডার

Table of Contents

বিল্ডার

বডি বিল্ডারের নাম শুনলেই চোখে ভাসে শরীরগঠনবিদদের দেহ। সাধারণত শরীরের নানা কসরত দেখিয়ে দর্শকদের আনন্দ দেন পুরুষ বডিবিল্ডাররা। কিন্তু নারী বডিবিল্ডারকে খুব কমই দেখা যায়। তবে চট্টগ্রামের মেয়ে মাকসুদা মৌ শরীর গঠনের প্রতিক হয়ে উঠেছেন। আর সেই মাকসুদাই আজ অন্তর্জাতিক মঞ্চে নিজের নাম লিখিয়েছেন।ভারতের মুম্বাইয়ে শুক্রুবার (৩ ডিসেম্বর) থেকে শুরু হয়েছে আইএইচএফএফ অলিম্পিয়া অ্যামেচার বডিবিল্ডিং চ্যাম্পিয়নশিপ। এই প্রতিযোগিতায় ‘ওমেন ফিজিক’ শ্রেণিতে অংশ নেবেন বাংলাদেশের মাকসুদা। আর তার সাথে মৌয়ের ইচ্ছাও পূরণ হতে চলেছে। প্রতিযোগিতাটি চলবে ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

 

 

ছোট বেলা থেকে আন্তর্জাতিক মঞ্চে নিজেকে দেখার ইচ্ছা ছিল মৌয়ের। সেই ইচ্ছা পূরণ হওয়ায় বেশ খুশি ২৮ বছর বয়সী এই বডি বিল্ডার। মাকসুদা বলেন, ‘আমাদের দেশে মেয়েদের বডিবিল্ডিং নিয়ে এখনো একটা ট্যাবু আছে। সেই বাধার দেওয়াল ভাঙার চেষ্টা করছি আমি, যাতে আমাদের দেশের অন্য মেয়েরাও বডিবিল্ডিংয়ে আসতে পারেন। প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক আসরে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে খুব ভালো লাগছে আমার।’

 

 

আরও পড়ুন: সর্বনিম্ন ৫০ টাকায় দেখা যাবে ঢাকা টেস্ট

 

 

ভারতে পড়াশোনা করার সময়ই নিজেকে ফিট রাখা দরকার বলে ভাবেন তিনি। তারপর থেকেই শুরু করেন ডায়েট। আর্নল্ড শোয়ার্জেনেগারকে তার আদর্শ মেনে নিজের শরীরকে গঠন করতে থাকেন। পরে বাইরের ট্রেনারকে নিযুক্ত করে নিজের শরীরকে গড়ে তোলেন বডি বিল্ডারদের মতো। এর জন্য বেশ খরচও করতে হয়েছে তাকে।

 

 

সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসে নারী ইভেন্ট ক্যাটাগরিতে স্বর্ণপদক জিতেছেন তিনি। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মাকসুদের পথ চলা শুরু মাত্র। মাকসুদার ইচ্ছা, একদিন বিশ্বের বুকে নারী বডিবিল্ডিংয়ে বাংলাদেশের পতাকা উড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »