বাড়িতে ডিজিটাল প্রেসার মাপার যন্ত্র কি উপযোগী ? | ব্লাড প্রেসার মেশিন এর দাম

Table of Contents

ব্লাড প্রেশার শব্দটির সাথে আমরা সবাই মোটামুটি পরিচিত কারণ ব্লাড প্রেসার বেড়ে যাওয়া বা কমে যাওয়ার সাথে মানুষের জীবন মরণ জড়িয়ে। খুব বেশি ব্লাড প্রেসার হলেও বিপদ আবার কম হলেও তথৈবচ।

তাই নিয়ম করে প্রেসার মাপার যন্ত্র ব্যবহার করে ব্লাড প্রেসার মেপে তা নিয়ন্ত্রণে রাখাই একমাত্র উপায় এই জনিত কোনো আকস্মিক বিপদ এড়ানোর। এবার ছোট করে দেখে নেওয়া যাক ব্লাড প্রেসার কি এবং কেন তা বাড়া কমা করে ?

ব্লাড প্রেসার কি ?

শরীরের রক্তবাহের (ব্লাড ভেসেল) মধ্যে দিয়ে রক্ত বয়ে যাবার সময়, সেই রক্তবাহের দেয়ালের গায়ে রক্ত যে পরিমাণ চাপ দেয় তাকেই বলা হয় ব্লাড প্রেসার। এই চাপ তৈরী হয় হৃৎপিণ্ড যে পরিমান রক্ত পাম্প করে রক্তবাহের মধ্যে প্রদান করে তার চাপের উপর।

ব্লাড প্রেসার সাধারণত দুটি শব্দ দিয়ে প্রকাশ করা হয় ; ১) সিস্টোলিক ব্লাড প্রেসার ২) ডায়াস্টোলিক ব্লাড প্রেসার

সিস্টোলিক ব্লাড প্রেসার কি ?

আমাদের শরীরে রক্ত, রক্তনালি বা রক্তবাহের (আর্টারি) গায়ে যে পরিমাণ চাপ দেয় “হার্ট বিট করার সময় ” , তাই হল সিস্টোলিক ব্লাড প্রেসার।

ডায়াস্টোলিক ব্লাড প্রেসার কি ?

আমাদের শরীরে রক্ত, রক্তনালি বা রক্তবাহের (আর্টারি) গায়ে যে পরিমাণ চাপ দেয় “ যখন হার্ট রেস্ট করে ২ টি বিট করার মাঝের সময়ে “ তাকে বলা হয় ডায়াস্টোলিক ব্লাড প্রেসার।

যদি কারোর ব্লাড প্রেসার ১৩০/৯০ হয়, তার মানে তার সিস্টোলিক ব্লাড প্রেসার ১৩০ mmHg , ডায়াস্টোলিক ব্লাড প্রেসার ৯০ mmHg .

ব্লাড প্রেসার মাপার একক কি ?

mmHg

আপনি ব্লাড প্রেসার কেন মাপবেন ?

আপনি উচ্চ রক্তচাপের অর্থাৎ High blood pressure এর রোগী কিনা তা জানতে হলে নিয়মিত ব্লাড প্রেসার মাপাই একমাত্র উপায় কোনো বিপদ এড়াবার কারণ সাধারণত রক্তচাপ বাড়ার কোনো প্রাথমিক লক্ষণ দেখা যায়না , তাই বেশিরভাগ মানুষ জানেন ই না যে তার রক্তচাপ কত। হঠাৎ করে কোনো সমস্যা হলে তখন মানুষ জানতে পারে।

অর্থাৎ হার্টের কার্যকারীতার উপর নজরদারি চালাতেই হবে সুস্থ থাকতে হলে। আর এই নিয়মিত নজরদারি তখনই সম্ভব যদি নিজের বাড়িতেই রাখা যায় একটা প্রেসার মাপার মেশিন।

ব্লাড প্রেসার কোথায় মাপতে পারেন ?

ডাক্তার বাবুর কাছে গিয়ে, যেকোনো ওষুধের দোকানে বা এখন নিজের বাড়িতেই ইলেক্ট্রনিক/ ডিজিটাল প্রেসার মাপার যন্ত্র কিনে মাপতে পারেন।

ব্লাড প্রেসার কত থাকা উচিত ?

স্বাভাবিক সুস্থ মানুষের রক্তচাপ বা ব্লাড প্রেসার ১২০/৮০ হওয়া উচিত যদিও একটু বয়স বাড়লে কমবেশী ১২৫/৮৫ ও স্বাভাবিক হিসেবেই ধরা হয়।

এবার দেখে নেওয়া যাক প্রেসার মাপার নিয়ম গুলি যা আমাদের মেনে চলতে হবে :-

ব্লাড প্রেসার মাপার আগে কি কি করণীয় ?

১. ব্লাড প্রেসার মাপার আধ ঘন্টা আগে কিছু খাওয়া বা পানীয় পান করা উচিত নয়।

২. মাপার ৫ মিনিট আগে এমন একটা চেয়ারে বসুন যার পিছনে হেলান দিতে পারবেন তারপর মাপুন্।

৩. পা ২ টি ক্রস না করে সমান ভাবে মাটিতে রাখুন।

৪. যে হাতটিতে প্রেসার মাপবেন সেটা কোনো একটা টেবিলের উপর রাখুন।

৫. প্রেসার মাপার কাফ টি আপনার ত্বকের উপর জড়াবেন , জামা কাপড়ের উপর নয়।

৬. একদম আরামদায়ক অবস্থায় কমফোর্টেবলি বসুন, প্রেসার মাপার সময় কথা বলবেন না, খুশি মনে প্রেসার মাপলে রিডিং সঠিক পাবেন।

ব্লাড প্রেসার কোন হাতে মাপতে হয়?

আপনি যদি ডান -হাতি হন তাহলে বাঁ হাতেই প্রেসার সাধারণত মাপা উচিত। আর যদি আপনার ডাক্তার বাবু বলে থাকেন তাহলে ডান হাতেও মাপতে পারেন।

ব্লাড প্রেসার মাপার সময় আপনার কি কি শারীরিক ভঙ্গিমা সঠিক রিডিং নিতে সমস্যা তৈরী করতে পারে ?

১. ব্লাড প্রেশার মাপতে গিয়ে আমরা সবাই কম বেশি কি রিডিং আসবে সেই নিয়ে ভয় পাই যার ফলে ব্লাড প্রেসারের রিডিং বেড়ে যায়। ( বলা হয় প্রতি ৩ জনে একজনের ব্লাড প্রেসার ডাক্তারবাবুর কাছে গেলে বেড়ে যায় কিন্তু ডাক্তার বাবুর কাছ থেকে বেরিয়ে এলে ব্লাড প্রেসার কমে যায়। )

২. যদি প্রেসার মাপার আগের আধ ঘন্টার মধ্যে আপনি ধূমপান, অ্যালকোহল বা চা কফি জাতীয় কিছু পান করে থাকেন যাতে ক্যাফিন আছে তাহলে ব্লাড প্রেসারের রিডিং স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি আসবে। এছাড়া ওই আধ ঘন্টার মধ্যে শরীরচর্চা করে থাকলেও রক্তচাপের রিডিং বেশি আসে।

৩. এছাড়াও পা ক্রস করে বসলে হাত টেবিলে না রেখে এমনি ফেলে রাখলেও রক্তচাপ স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি আসবে। .

কতদিন ছাড়া ছাড়া ব্লাড প্রেসার মাপা উচিত ?

প্রতি মাসে একবার করে যেকোনো সুস্থ মানুষের যার প্রেসার নেই অথচ ৪০ এর উপর বয়স তার প্রেসার চেক করা উচিত। আর যাদের প্রেসার সবে মাত্র ধরা পড়েছে তাদের যদি সম্ভব হয় কিছু দিন ছাড়া ছাড়াই প্রেসার চেক করা উচিত বলে মনে করেন চিকিৎসকেরা। আর যারা দীর্ঘদিন রক্তচাপের সমস্যাতে ভুগছেন তাদের সপ্তাহে একবার বা ১০ দিন ছাড়া একবার চেক করা উচিত।

দিনের মধ্যে কখন ব্লাড প্রেসার চেক করা উচিত ?

সারাদিন আমাদের ব্লাড প্রেশার বদলাতে থাকে ,যখন আমরা ঘুম থেকে উঠি তখন সবচেয়ে কম থাকে রক্তচাপ আর যখন খুব কাজ কর্ম করি তখন সবচেয়ে বেশি হয়। তাই যারা হাই ব্লাড প্রেশার এর রোগী তারা , যেদিন মাপবেন প্রেসার বলে ভাবছেন সেদিন ২ বার চেক করুন।

প্রথম বার চেক করুন ঘুম থেকে ওঠার আধ ঘন্টা পর ব্রেকফাস্ট এর আগে, আর দ্বিতীয় বার সন্ধ্যে বেলা। সন্ধেয় চেক করার পর যে রিডিং পাবেন তা সকালের চেয়ে ১০ mmHg বেশি হতে পারে। .

ব্লাড প্রেসার বেড়ে গেলে করণীয় কি ?

আপনি যে বয়সেরই হন না কেন ব্লাড প্রেশার বেড়ে গেছে দেখলে ভয় পাবেন না, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ডাক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

উচ্চ রক্তচাপের লক্ষণ কি কি ?

যখন প্রথম কারোর উচ্চ রক্ত চাপের সমস্যা শুরু হয় তখন সেইভাবে কোনো রোগ লক্ষণ প্রকাশ পায়না। অল্পতে হাঁপিয়ে পড়া, ক্লান্তি , মাথা ঘোরা, ঘাড়ের যন্ত্রনা এগুলি প্রাথমিক ভাবে হতে পারে। আর এই প্রাথমিক লক্ষণগুলি উপেক্ষা করলে পরে গুরুতর ক্ষেত্রে ঝাপসা দেখা, মাথার যন্ত্রনা, বুকের যন্ত্রনার মতো সমস্যা তৈরী হয়।

তাই সামান্য সমস্যা হলেই ডাক্তারবাবুর পরামর্শ নিন।

উচ্চ রক্ত চাপে কি কি সমস্যা হতে পারে ?

১. হার্টের মাসল বা পেশিগুলি দুর্বল হয়ে পড়তে পারে, ফলে হার্ট সারাদেহে রক্ত পাম্প করতে পারেনা এবং হার্ট ফেল পর্যন্ত হতে পারে।

২. কিডনিতে সমস্যা দেখে দিতে পারে, সেরিব্রাল অ্যাট্যাক বা মস্তিষ্কে স্ট্রোক, রক্তক্ষরণও হতে পারে।

৩. রেটিনা নষ্ট পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে উচ্চ রক্তচাপের ফলে।

ব্লাড প্রেসার স্বাভাবিক রাখার জন্য দৈনন্দিন জীবনে কি করবেন আর কি করবেন না ?

উচ্চ রক্তচাপ কমানোর উপায় / উচ্চ রক্তচাপের প্রতিকার –

১. ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণের উপায়গুলির মধ্যে প্রথম হল খাদ্যাভ্যাস নিয়ন্ত্রণ। এমন খাবার খান যা হার্ট সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে। টাটকা শাক – সবজি , ফল ,হালকা প্রোটিন ও ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খান। কাঁচা নুন একেবারেই খাওয়া চলবে না ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণে রাখতে গেলে।

২. চিনি, তেল, চর্বি, ডালডা, ঘি, মাখন, অত্যধিক সোডিয়াম সমৃদ্ধ খাবার, রেড মিট, মিষ্টি, সফ্ট ড্রিঙ্কস এড়িয়ে চলুন।

৩. প্রতিদিন নিয়ম করে ১ ঘন্টা শরীর চর্চা করুন।

৪. ধূমপান করলে তা ত্যাগ করার চেষ্টা করুন। যারা সবে ধূমপান শুরু করছেন তারা মাথায় রাখুন যে ঈশ্বর নাক আর মুখ দিয়েছেন বেঁচে থাকার তাগিদে খাবার জন্য এবং নিঃশ্বাস নেবার জন্য, শ্বাসনালিতে ধোঁয়া ঢুকিয়ে জীবন বিপন্ন করতে নয়।

৫. অ্যালকোহল এড়িয়ে চলাই ভালো।

৬. পর্যাপ্ত ঘুম শরীরের সর্বাধিক প্রয়োজনগুলির মধ্যে একটা।

৭. শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন যে কোনো উপায়ে।

৮. যদি ওষুধ খেতে হয় তা ডাক্তাররের পরামর্শ মেনে খান, নিজে ডাক্তারি করতে যাবেন না।

৯. আর একটি গুর্রুত্বপূর্ণ উপদেশ যা চিকিৎসকরা দিয়ে থাকেন তা হলো দুঃশ্চিন্তাকে প্রশ্রয় না দেওয়া। যদি অত্যধিক চিন্তা করার অভ্যাস যা শহুরে ভাষায় “স্ট্রেস ” নামে পরিচিত সেটা থাকে, তাহলে কিন্তু ব্লাড প্রেসার কমানোর উপায় খুঁজলেও পাওয়া যাবেনা।

কিন্তু বর্তমানে স্ট্রেস প্রায় আমাদের কাজের জায়গায় নিত্যসঙ্গী, সেটা বাদ দিয়ে উপার্জন সম্ভব নয় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই, কাজের সময় ছাড়া বাদবাকি সময় চেষ্টা করুন খুশি থাকতে, প্রাণশক্তি এতে বাড়বে।

 

হার্ট বা হৃৎপিন্ডকে ভালো ও সুস্থ রাখতে কি ধরণের খাবার খাওয়া উচিত ?

আপেল , কলা , কমলালেবু , ব্রকোলি , গাজর , আটার রুটি , আটার পাস্তা , অল্প বাদাম খাওয়া ভালো।

 

ব্লাড প্রেসার মাপতে যারা ডাক্তার নয় কি ধরণের প্রেসার মাপার যন্ত্র বাড়িতে রাখা উপযোগী ?

প্রেসার মাপার যন্ত্র যেটা আগে ব্যবহার হত অর্থাৎ হাতে করে ডাক্তারবাবুরা পাম্প করে হাতে কাফ জড়াতেন তাতে প্রেসার দিতেন এবং স্টেথো দিয়ে কানে লাগিয়ে শুনে বলতেন সেই প্রেসার মাপার মেশিনের মতো যন্ত্র ব্যবহার করতে হলে বাড়িতে আপনাকে শিখতে হবে কিভাবে কোন আওয়াজ কানে শুনতে হয়, তাই সাধারণের পক্ষে তা ব্যবহার সহজ নয়।

কিন্তু ডিজিটাল প্রেসার মাপার যন্ত্র যে কেউ ব্যবহার করতে পারে। সব কাজ যন্ত্রই করে, কিছু শিখতে হবেনা। তাই বাড়িতে এটা ব্যবহার করাই সবচেয়ে সুবিধাজনক। শুধু কেনার সময় খেয়াল রাখতে হবে এমন যন্ত্র কিনতে যা সত্যিই সঠিক রিডিং দেয়।

এখনও যেহেতু এনালগ প্রেসার মাপার মেশিন বহু জায়গায় ব্যবহৃত হয় তাই এনালগ প্রেসার মাপার মেশিনের দাম সম্পর্কে অনেকের কৌতূহল থাকে। তাই দুই ধরণেরই প্রেসার মাপার যন্ত্রের মূল্য কীরকম হতে পারে তা জেনে রাখাও জরুরী।

  1. প্রেসার মাপার মেশিনের

প্রেসার মাপার মেশিনের ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি আলাদা হলেও প্রেসার মাপার যন্ত্রের পরিচালনার নিয়ম বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই একই রকম। সত্যি বলতে ৫ বছরের বাচ্চাকে শিখিয়ে দিলে সে ও পারবে। যার প্রেসার মাপা হবে তার বাঁ হাতে ‘ কাফ ‘ পরিয়ে মেশিনের অন করার বোতাম টিপে দিলেই মেশিন নিজেই হাওয়া ভরবে কাফে , তখন ব্যক্তি হাতে বেশ চাপ অনুভব করবে , তারপর কিছুক্ষণ পর ই যন্ত্রটি নিজেই আস্তে আস্তে হাওয়া ছেড়ে দিতে থাকবে এবং স্ক্রিনে প্রেসার কত হলো তা দেখাবে। তখন কাফ খুলে নিতে হবে। এতটাই সহজ পদ্ধতি।

প্রেসার মাপার যন্ত্র কোথায় পাওয়া যায় ?

এখন তো বাড়িতে বসে অনলাইনেই পেয়ে যাবেন প্রেসার মাপার যন্ত্র। এছাড়াও আপনার আশপাশের যেকোনো ওষুধের দোকান , মেডিক্যাল/সার্জিকাল দ্রব্যাদির দোকানে পাওয়া যাবে। ব্লাড প্রেসার মাপার যন্ত্রের দাম কখনোই খুব বেশী হয়না , তাই সম্ভব হলে বাড়িতেই কিনে রাখা উচিত যা এখন সত্যি প্রয়োজন ।

রক্তচাপ মাপার যন্ত্রের দাম/প্রেসার মাপার মেশিনের দাম কত? তা কি সবার সাধ্যের মধ্যেই ?

বাজারে মোটামুটি ১০০০ টাকা থেকে রক্তচাপ মাপার যন্ত্রের দাম শুরু হয়। আপনি আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী মেশিন কিনতেই পারেন।

ম্যানুয়াল প্রেসার মাপার যন্ত্রের দাম কত ?

১০০০ থেকে ১৫০০ টাকার মধ্যে।

 

সেরকমই বাড়িতেই ব্লাড প্রেসার মাপার জন্য সবচেয়ে ভালো কয়েকটি ডিজিটাল প্রেসার মাপার যন্ত্রের উদাহরণ ও সেই সঙ্গে প্রেশার মাপার মেশিনের দাম সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হল –

omiron

সঠিক রিডিং এর জন্য এটা অসিলোমেট্রিক পদ্ধতিতে রক্তচাপ মাপে।

যদি কারোর ব্লাড প্রেসার বেশি থাকে তাহলে এই যন্ত্রের গায়ের ইন্ডিকেটর জ্বলতে থাকে সাথে পালস রেট ও মাপতে পারে।

৩ বছরের ওয়ারেন্টি।ব্যাটারি চালিত মেশিন।

দাম- ২১৯০ টাকা

কিনতে হলে আমাজনে দেখুন

Omron HEM ৭১২০ ফুললি অটোমেটিক ডিজিটাল ব্লাড প্রেসার মনিটর

 

৩৬০ ডিগ্রী অ্যbp machinকিউরেসি wrap কাফ ভালো ভাবে হাতে ফিট করতে সাহায্য করে। ফলে বাড়িতেই সঠিক মাপ নেওয়া সম্ভব হয় যেকোনো সাধারণ মানুষের ক্ষেত্রে।

২. অস্বাভাবিক হার্টবিট , হাইপারটেনশন, পালস রেট মাপতে পারে। ব্যাটারি চালিত মেশিন।

দাম – ৩৪৮৯ টাকা

 

কিনতে হলে আমাজনে দেখুন

এনালগ প্রেসার মাপার মেশিনের দাম মাত্র ১১০০ টাকা

এনালগ প্রেসার মাপার মেশিনের দাম কত অনেকেই এই প্রশ্নের উত্তরটি জানতে চান আমরা বলব এনালগ প্রেসার মেশিন ব্যবহার করতে চাইলে আপনি আমাদের থেকে কিনে ব্যবহার করতে পারেন ডিজিটাল পেশার মাপার মেশিন কিনতে চাইলে আমাদের থেকে কিনতে পারেন আমরা ডিজিটাল প্রেসার মাপার মেশিন দাম কত এবং এনালগ প্রেসার মাপার মেশিনের দাম কত জেনে নেব।

আপনি চাইলে আমাদের থেকে এনালগ প্রেসার মেশিন কিংবা ডিজিটাল প্রেসার মেশিন কিনতে পারেন তবে আমরা আপনাকে সাজেস্ট করব আপনি যদি নতুন হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই ডিজিটাল প্রেসার মেশিন ক্রয় করুন আর আপনি যদি পূর্ব অভিজ্ঞ হয়ে থাকেন প্রেসার মাপার মেশিন ক্রয় করুন এনালগ প্রেসার মেশিন।

আরো পড়ুনঃইউটিউব শর্টস থেকে আয় করার উপায়

আরো পড়ুনঃ যেভাবে চিনবেন খাঁটি মধু খাঁটি ঘি কিভাবে চিনবেন কাটিং

এনালগ প্রেসার মাপার মেশিনের দাম

আমরা প্রত্যেকটি এনালগ প্রেসার মাপার মেশিনের দাম নিয়ে থাকে 100 টাকা থেকে শুরু করে বারোশো পঞ্চাশ টাকা পর্যন্ত পিকচারে আপনি যে এনালগ প্রেসার মেশিন টি দেখতে পাচ্ছেন এটি আপনি কিনতে পারবেন এগারো শো টাকা থেকে ১২৫০ টাকা পর্যন্ত দাম দিয়ে এছাড়াও সাথে অতিরিক্ত ডেলিভারি খরচ যুক্ত হবে।

আরো পড়ুনঃ  দ্বিতীয়বারের জন্য মাকে ধর্ষণ করতে গিয়ে গ্রেফতার ছেলে

আপনি যদি সরাসরি এনালগ পেশার মাপার মেশিন ক্রয় করতে চান তাহলে পিকচারে যে ফোন নম্বরগুলো দেয়া হয়েছে উক্ত ফোন নম্বর গুলো তে ফোন করে জেনে নিতে পারেন অথবা আপনি যদি সরাসরি অর্ডার করতে চান পিকচারের নিচে লিঙ্ক দেওয়া রয়েছে সেই লিঙ্কে গিয়ে আপনি সরাসরি ওয়েবসাইট থেকে অর্ডার করতে পারবেন।

এনালগ প্রেসার মাপার মেশিনের দাম  কত

প্রত্যেকটি এনালগ প্রেসার মাপার মেশিনের দাম 100 টাকা থেকে শুরু করে বারোশো পঞ্চাশ টাকা এর সাথে ডেলিভারি খরচ ঢাকার মধ্যে যোগ হবে 50 টাকা ঢাকার বাহিরে ডেলিভারি খরচ 150 টাকা। আপনি যদি ঢাকার বাহিরে থেকে এনালগ প্রেসার মাপার মেশিন কিনতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই অগ্রিম ডেলিভারি খরচ প্রদান করতে হবে।

এনালগ প্রেসার মেশিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে নয়তো একজনের কাছ থেকে এ বিষয়ে শিখে নিতে হবে আপনি কিভাবে এনালগ পেশার মাপার মেশিন ব্যবহার করবেন আর আপনি যদি ডিজিটাল প্রেসার মাপার মেশিন ক্রয় করেন তাহলে আপনাকে তেমন কোনো বিষয় জানতে হবে না আপনি এগুলোর সহজেই নিজে নিজেই ব্যবহার করতে পারবেন।

এনালগ প্রেসার মাপার মেশিন

এনালগ পেশার মাপার মেশিন বাংলাদেশের যেকোনো প্রত্যন্ত জেলা শহর থেকে কিংবা প্রত্যন্ত থানা শহর থেকে আপনি চাইলে সরাসরি আমাদের থেকেই ক্রয় করতে পারেন আমাদের থেকে ক্রয় করতে চাইলে আমাদের ফোন নম্বরে সরাসরি ফোন করুন অথবা আমাদের ওয়েবসাইটে গিয়ে সরাসরি অর্ডার করতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ ছেলের বিরুদ্ধে মাকে ধর্ষণের অভিযোগ মধ্যপ্রদেশে

সব সময় অনলাইন থেকেই ক্রয় করুন এনালগ প্রেসার মেশিন অনলাইন থেকে চাইলে কিনতে পারেন আবার ডিজিটাল প্রেসার মেশিন অনলাইন থেকে ক্রয় করতে পারেন আর অনলাইনে আপনাদের পাশে থাকার জন্য আমরা সবসময় প্রস্তুত আর কেনাকাটার জন্য অবশ্যই ভিজিট করুন আমাদের এনালগ প্রেসার মেশিন কিভাবে ব্যবহার করতে হয় তার এটির ব্যবহার প্রক্রিয়া বা ব্যবহার পদ্ধতি না জেনে থাকলে সরাসরি আমাদের ফোন নম্বরে ফোন করে জেনে নিতে পারেন অথবা এটি সম্পর্কে এনালগ প্রেসার মেশিন সম্পর্কে যদি আপনার কোন তথ্য জানার থাকে সেটি জানার জন্য আমাদের নাম্বারে ফোন করতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ নায়লা নাঈমের জীবনী আসছে নায়লা নাঈমের জীবনীগ্রন্থ

আরো পড়ুনঃনিজের গর্ভবতী মাকে বিয়ে করল ছেলে

আপনার পরিবারের বৃদ্ধ বাবা-মায়ের জন্য কিংবা আপনার নিজের জন্য আপনার সন্তান সন্ততির জন্য একটি প্রেসার মাপার মেশিন অতিব জরুরী তাহলে আপনি তাদের প্রেসার লেভেলটা সহজেই জেনে যেতে পারবেন।

বিশেষ করে বৃদ্ধ বাবা-মা বয়স্ক বাবা মার জন্য প্রেসার মাপার মেশিন খুবই জরুরি তাই আপনার বাবা-মার কথা চিন্তা করে অবশ্যই এগুলো সংগ্রহ করে আপনার পরিবারের সাথেই রাখুন

 কিনতে হলে আমাজনে দেখুন  

 

020 HP 14 inch HD Laptop, Intel Celeron N4020 up to 2.8 GHz, 4GB DDR4, 64GB eMMC Storage, WiFi 5, Webcam, HDMI, Windows 10 S /Legendary Accessories
020 HP 14 inch HD Laptop, Intel Celeron N4020 up to 2.8 GHz, 4GB DDR4, 64GB eMMC Storage, WiFi 5, Webcam, HDMI, Windows 10 S /Legendary Accessories

Omron Blood Pressure Machine price in bangladesh Digital Blood pressure machine made in Japan price in Bangladesh Digital BP Machine price in BD Bp masin price Procare Blood Pressure Monitor price in Bangladesh B.P. machine parts name Sphygmomanometer price in bd Analog Blood Pressure Machine price in bangladesh

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »